avertisements 2

শাহরুখ পুত্রর বিরুদ্ধে সাক্ষী দিতে ১৮ কোটির টাকার  চুক্তি!

ডেস্ক রিপোর্ট
প্রকাশ: ১২:০০ এএম, ২৫ অক্টোবর,সোমবার,২০২১ | আপডেট: ১২:৫৫ এএম, ২৫ নভেম্বর,বৃহস্পতিবার,২০২১

Text

মাদককাণ্ডে শাহরুখপুত্র আরিয়ান খান আটকের পর থেকে এনসিবি প্রকাশ করছে একের পর এক নতুন তথ্য। আরিয়ানকে কারা মাদক সাপ্লাই করত তা জানার জন্য একের পর এক ব্যক্তিকে তলব করেই যাচ্ছে এনসিবি। এমন কি অনেককে গ্রেপ্তারও করেছে কিন্তু কাউকে সেভাবে আরিয়ানের বিপক্ষে সাক্ষী হিসেবে পেশ করতে পারেনি।

এবার এনসিবির বিরুদ্ধে এক বিস্ফোরক মন্তব্য করেন মাদক মামলার এক প্রত্যক্ষদর্শী। আরিয়ান খানের বিরুদ্ধে সাক্ষী জোগাড় করার জন্য উঠে পড়ে লেগেছে এনসিবি। আরিয়ানে বিরুদ্ধে সাক্ষী দেওয়ার জন্য কোটি টাকার প্রস্তাব রাখা হয়েছে বলে দাবি সেই সাক্ষীর।

আরিয়ান খানকে আটক করার পর এনসিবির সদর দপ্তর থেকে তোলা একটি সেলফি সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করার পর তা মুহূর্তেই ভাইরাল হয়ে যায়। প্রথমে  ধারণা করা হয় সেই ব্যক্তি এনসিবির কর্মকর্তা। কন্তু আসলে উনি এনসিবির কেউ নন।

সেই ব্যক্তির নাম কিরণ পি গোসাভি। ওই ঘটনার পর থেকেই পলাতক কিরণ পি গোসাভি। এনসিবি থেকে জানানো হয়েছিল সে ব্যক্তিই আরিয়ানের বিরুদ্ধে মূল সাক্ষী।

সেই জের ধরেই কিরণের দেহরক্ষী এনসিবির বিরুদ্ধে মুখ খুললেন। আরিয়ানের বিরুদ্ধে  সাক্ষী দেওয়ার জন্য কিরণের সঙ্গে ১৮ কোটি টাকার চুক্তি করেছে এনসিবি।

কিরণের দেহরক্ষী প্রভাবকরের দাবি, সাদা কাগজে এনিসিবি সই করিয়েছেন কিরণকে দিয়ে । এমনকি সমীর ওখান্ডের বিরুদ্ধে ৮ কোটি টাকা ঘুষ নেওয়ার কথাও বলেছেন।

এনসিবি তাদের এক প্রেস রিলিজে প্রভাকর সেইলকে সাক্ষী হিসেবে উল্লেখ করেছিল এনসিবি। এবার তার এসব কথায় সমস্যায় পড়তে পারে এই এনসিবি।

কিন্তু এনসিবি প্রভাকরের এসব মন্তব্যকে মিথ্যা বানোয়াট বলে উড়িয়ে দিয়েছে। সেই সঙ্গে সমীর ওখান্ডে বলেছেন, সময় এলে এর যথাযথ উত্তর দেবে এনসিবি। এসব অভিযোগ ভিত্তিহীন বলার পাশাপাশি বলেন, এনসিবি অফিসে অনেক সিসিটিভি আছে, এতো সহজে সব হওয়া সম্ভব নয়।

বলিউড থেকে রাজনীতি সব জায়গায় সমীর ওখান্ডে একটি আতংকের নাম। তাকে ঘিরে যেন বিতর্কের শেষ নেই। বলিউডের একাংশ এবং বেশ কিছু রাজনীতিবিদের দাবি, শাহরুখপুত্র আরিয়ানকে মিথ্যা মামলায় ফাঁসানো হচ্ছে।

বিষয়:

আরও পড়ুন

avertisements 2