avertisements 2

ছোট ছোট সঞ্চয় বিপদে আর্থিক স্বস্তি আনে

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি
প্রকাশ: ১২:০০ এএম, ১৮ জুন,শনিবার,২০২২ | আপডেট: ০৩:১২ পিএম, ২৫ জুন,শনিবার,২০২২

Text

কথায় আছে সংসার সুখের হয় রমণীর গুণে। একজন নারীই পারে তাঁর পরিবারটিকে সমস্ত বিপদ আপদ  থেকে আগলে রাখতে। এমনি একজন রক্ষণশীল পরিবারের মেয়ে কাকলী রানী দাশ । বিয়ের পর স্বামীর সীমিত আয়ের থেকে একটু একটু করে অর্থ সঞ্চয় করেছিলেন সংসারটিকে ধরে রাখতে, সুখের করতে। দূরদর্শী সম্পন্না গৃহিনী  কাকলী রানী  ক্ষুদ্র সঞ্চয় সংসারের ক্ষুদ্রক্ষুদ্র চাহিদা পুরনে ব্যয় হয়ে যাওয়ার আশংকায় শরণাপন্ন হন একটি অব্যাংকিং আর্থিক প্রতিষ্ঠানের। ২০১৮ সালে মেয়াদী আমানতকারী হিসেবে তিনি ইন্টারন্যাশনাল লিজিং এন্ড ফাইনান্সিয়াল সার্ভিসেস লিমিটেডে একটি আমানত বিনিয়োগ করেন। 
 
মেয়াদ পুরণ হওয়ার পর তা অটো রিনিউ হতে থাকে। তিনি বিশ্বাস করেন তাঁর সৎ উদ্দেশ্যে সঞ্চিত অর্থ সুরক্ষিত থাকবে এবং এই অর্থ তাঁর জীবনে একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। 
 
কিন্ত ভাগ্যের নির্মম পরিহাসে আকস্মিকভাবে সড়ক দুর্ঘটনায় মর্মান্তিকভাবে আহত হন এই দম্পতি। গুরুতর ভাবে আহত হন তাঁর স্বামী। এমতাবস্থায় জমানো অর্থ ছাড়া আর কোন উপায়ে না পেয়ে প্রয়োজনীয় কাগজপত্রসহ আবেদন করেন ইন্টারন্যাশনাল লিজিং এ। প্রতিষ্ঠান তাঁর প্রয়োজনকে গুরুত্ব দিয়ে ২০২২ সালে প্রায় ১ লক্ষ ৪৬ হাজার টাকা নগদায়ন করার ব্যবস্থা করে। দরকারের সময় টাকা হাতে পেয়ে বিপদমুক্ত হতে পেরেছেন কাকলী রানী। 
 
হঠাৎ কেউ গুরুতর অসুস্থ হলে ভূক্তভুগি হয় সেই পরিবারের সদস্য ও আত্মীয় স্বজনেরা। একে তো মানসিক বিপর্যয়ই অন্য দিকে আর্থিক সঙ্কট। যদি করা থাকে  ছোট ছোট ভাবে সঞ্চয় তা এ ধরনের দূর সময়ে আশীর্বাদ স্বরূপ। যে কাজ টি করে নন ব্যাংকিং আর্থিক প্রতিষ্ঠান গুলোর মত কিছু প্রতিষ্ঠান।   
 
এমনি আর একজন মুশতারী পারভীন । সাশ্রয়ী মনভাব নিয়ে স্বামীর অজান্তে অর্থ সঞ্চয় করেন অব্যাংকিং আর্থিক প্রতিষ্ঠান ইন্টারন্যাশনাল লিজিং এন্ড ফাইনান্সিয়াল সার্ভিসেস লিমিটেডে। ২০১৯ সালের এপ্রিল মাসের ৩০ তারিখে ২ লক্ষ টাকার একটি দীর্ঘ মেয়াদী আমানত বিনিয়োগ করেন। ২০২০ সালে তার সন্তান একটি দুরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত হলে প্রয়োজন পড়ে নগদ অর্থের। সঞ্চয় করা এই অর্থ নিয়ে সন্তানের চিকিৎসায় ব্যয় করতে স্বামীকে কিছুটা সহায়তা করতে পেরেছেন মুশতারী বেগম। 
 
 এভাবে নন ব্যাংকিং আর্থিক প্রতিষ্ঠান গুলো সর্ব সাধারন জনগণের পাশে থেকে আর্থিক সেবা দান করছে। ইন্টারন্যাশনাল লিজিং এন্ড ফাইনান্সিয়াল সার্ভিসেস লিমিটেড তাঁর ব্যতিক্রম নয়। 
 
তবে একথাও সত্য নন ব্যাংকিং আর্থিক প্রতিষ্ঠান গুলোর প্রশাসনিক জটিলতার কারনে অনেক সময় ভুক্তভুগি হতে হয় গ্রাহকের। ইন্টারন্যাশনাল লিজিং এন্ড ফাইনান্সিয়াল সার্ভিসেস লিমিটেডের ও এরকম জটিলতার কারনে ভুক্তভুগি হতে হয়েছে গ্রাহকদের। তবে বর্তমান পরিচালনা ব্যবস্থাপনা পর্ষদের অধীনে উপযুক্ত বিচক্ষন ও দক্ষ নেতৃত্বে ঘুরে দাঁড়াতে চলেছে প্রতিষ্ঠানটি। 
 
এজন্য গ্রাহককে সচেতন ভাবে বিনিয়োগ করতে হয়। সবচেয়ে বড় কথা হল সৎ উদ্দেশ্যে সৎ ভাবে অর্থ সঞ্চয় করলে তা কখনও খোয়া যায় না।
 
ইন্টারন্যাশনাল লিজিং এর অভিজ্ঞ পরিচালনা পর্ষদ ও দূরদর্শী সম্পন্ন ও বলিষ্ঠ নেতৃত্বে  সময়োপযোগী সংষ্কারমূলক বিভিন্ন কর্মসূচী বাস্তবায়নের মধ্যে একটি উল্লেখযোগ্য সিদ্ধান্ত হল  মানবিক কারনে অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে  অসুস্থ ও বিপদগ্রস্থ গ্রাহকদেরকে  দ্রুততম সময়ের মধ্যে তাদের বিনিয়োগকৃত অর্থ নগদায়ন করে আস্থার জায়গা তৈরী করে নেওয়া ।
এভাবে সাধারন জনগণের পাশে দাঁড়াতে চেষ্টা করে যাচ্ছে আর্থিক সেবা দানকারী প্রতিষ্ঠান ইন্টারন্যাশনাল লিজিং এন্ড ফাইনান্সিয়াল সার্ভিসেস লিমিটেড । যাতে করে  সাধারন জনগণের আস্থায় ফিরে তাদেরকে নতুন করে বিনিয়োগমুখী করে তোলা যায় ।  
 

বিষয়:

আরও পড়ুন

avertisements 2