avertisements 2

ভাইয়ের পাঠানো শখের মোবাইল আনতে জরিমানা

ভাইয়ের পাঠানো শখের মোবাইল আনতে জরিমানা

ডেস্ক রিপোর্ট
প্রকাশ: ১২:০০ এএম, ২৫ জুলাই,রবিবার,২০২১ | আপডেট: ০৫:৩০ পিএম, ২৪ সেপ্টেম্বর,শুক্রবার,২০২১

Text

সাইফুল ইসলামের বাসা নয়াবাজারে। ছোটভাই সিঙ্গাপুর থেকে তার জন্য নতুন মোবাইল পাঠিয়েছেন।

বিমানবন্দর থেকে সে মোবাইল নিয়ে ঘরে ফেরার পথে পড়লেন র‌্যাবের জিজ্ঞাসাবাদে। তার ঘর থেকে বের হওয়ার কারণ সন্তুষ্ট করতে পারেনি র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটকে। ফলে পকেট থেকে গুনতে হলো নগদ পাঁচশ টাকা।
রোববার (২৫ জুলাই) রাজধানীর শাহবাগ মোড়ে দেশে চলমান কঠোর বিধি-নিষেধে অকারণে সাধারণ মানুষের ঘর থেকে বের হওয়া রুখতে র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালতে এ ঘটনা ঘটে।

র‍্যাব-৩ এর পরিচালনায় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পলাশ কুমার বসুর নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালতটি পরিচালনা করা হয়েছে।

ঘটনার বিবরণ দিয়ে সাইফুল ইসলাম বাংলানিউজকে বলেন, ছোটভাই সিঙ্গাপুরে থাকেন। আমার জন্য একটা মোবাইল পাঠিয়েছেন। আমি সে মোবাইল নিতে ফজরের নামাজের সময় বের হয়ে অনেক কষ্টে এয়ারপোর্ট গিয়েছিলাম। এখন ফেরার পথে অকারণে আমারে ধরে পাঁচশ টাকা জরিমানা করে বসছে।

মোবাইল আনতে যাওয়াটা তো জরুরি কাজ নয়- এ বিষয়ে তিনি বলেন, যার কাছে আমার ছোটভাই মোবাইল পাঠিয়েছেন, তিনি ব্রাক্ষ্মণবাড়িয়া চলে যাবেন। সেজন্য কষ্ট করে হলেও আনতে গিয়েছিলাম।

শুধু সাইফুল ইসলামই নয় আরও অনেকের ঘর থেকে বের হওয়ার কারণ সন্তুষ্ট করতে পারেনি নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পলাশ কুমার বসুকে।

তাদেরই একজন সাগর ফরাজী। রাজধানীর কাপ্তানবাজার থেকে ধানমন্ডির ৩২ নম্বরের একটি রেস্টুরেন্টে চিংড়ি মাছ সাপ্লাই দিতে গিয়ে জরিমানা গুনেছেন পাঁচশ টাকা।

তিনি বলেন, আমাদের অর্ডার ছিলো, আমরা সে অর্ডার দিয়ে ফিরছিলাম। আমি তাদের বলেছি, আমার কাছে কাগজ নেই। কিন্তু চাইলে তারা রেস্টুরেন্টের মালিকের সঙ্গে কথা বলতে পারেন। কিন্তু তারা কোনো কথা শোনেননি। অযৌক্তিকভাবে জরিমানা করা হয়েছে।

শনিবার পুলিশ গাড়ি আটকানোয় সেটি ছাড়াতে রোববার ঘর থেকে বের হয়েছিলেন আবু বকর সিদ্দিক। তিনি বলেন, শনিবার রোগী নিয়ে হাসপাতালে যাওয়ার সময় আমাদের গাড়ি আটকায়। সেটি ছাড়াতেই বের হয়েছিলাম। কিন্তু গাড়িও পাইনি। উল্টো এক হাজার টাকা জরিমানা দিয়ে গেলাম।

পুরো বিষয় নিয়ে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পলাশ কুমার বসু বলেন, রাস্তায় যারা বের হয়েছেন তাদের সবাইকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। যারা সন্তোষজনক উত্তর দিতে পারেননি, তাদের জরিমানা করা হচ্ছে। আইনের বাইরে আমরা কোনো কাজ করবো না।

রোববার সকাল সাড়ে ১১টায় থেকে শুরু হওয়া এ অভিযানে দুপুর ১টা পর‌্যন্ত পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

বিষয়:

আরও পড়ুন

avertisements 2