avertisements

কত ম্যাক্রোঁ আসলো গেল, ইসলাম সর্ব শ্রেষ্ঠ ধর্ম থেকেই গেল: পার্থ

ডেস্ক রিপোর্ট
প্রকাশ: ০৭:৫৮ পিএম, ৩০ অক্টোবর,শুক্রবার,২০২০ | আপডেট: ০২:০৪ পিএম, ২৬ নভেম্বর,বৃহস্পতিবার,২০২০

Text

ঢাকা- মহানবী হজরত মুহাম্মাদ সাল্লাল্লাহু আলাইহী ওয়া সাল্লামকে অবমাননা ও দেশটির প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রোঁর ইসলাম অবমাননাকর বক্তব্যের প্রতিবাদ জানিয়েছেন বাংলাদেশ জাতীয় পার্টির (নাজিউর) সভাপতি ব্যারিস্টার আন্দালিব রহমান পার্থ।

মঙ্গলবার (২৭ অক্টোবর) সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে দেওয়া এক পোস্টে তিনি লিখেন, মহানবী হযরত মুহাম্মাদ (সাঃ) পৃথিবীর সর্বশ্রেষ্ঠ মানব এবং চিরকাল তিনিই থাকবেন। এরকম কত ম্যাকরন আসলো গেল, ইসলাম সর্ব শ্রেষ্ঠ ধর্ম থেকেই গেল।

ব্যারিস্টার আন্দালিব রহমান আরো লিখেন, ফ্রান্স এর রাষ্ট্রপতি ম্যাকরন বাক স্বাধীনতার নামে ইসলামকে কটূক্তি কিংবা অপমান করার পক্ষে অবস্থান নিয়েছেন, অথচ তুর্কি রাষ্ট্রপতি ম্যাকরনকে মানসিক রোগী বলায় তুর্কি দুতকে ফেরত পাঠিয়ে দিয়েছেন, এখন আর ম্যাকরন বাকস্বাধীনতা চোখে দেখে না।

আসলে যারা ইসলাম এর বিরুদ্ধে তারা সবসময় মুক্তচিন্তা, বাকস্বাধীনতা , গনতন্ত্র এইসব ব্যাবহার করে ইসলাম কে অপমান করতো।

হাজার বছর ধরেই এই অপচেষ্টা চলে আসছে আর এতে করে ইসলাম এর কিছুই যায় আসে না। মহানবী হযরত মুহাম্মাদ (সাঃ) পৃথিবীর সর্বশ্রেষ্ঠ মানব এবং চিরকাল তিনিই থাকবেন।

উল্লেখ্য, ফরাসি পত্রিকা শারলি এবদো সম্প্রতি মানবতার মুক্তির দূত বিশ্বনবী (সা.)-এর অবমাননাকর কার্টুনগুলো পুনরায় মুদ্রণ করেছে। ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাকরন সব ধরনের গণতান্ত্রিক মূল্যবোধ ও কূটনৈতিক রীতিনীতির মাথা খেয়ে ঘোষণা করেছেন, তার দেশে এ ধরনের কার্টুন প্রকাশ অব্যাহত থাকবে।

এ ঘটনাকে ঘিরেই মুসলিম দেশগুলোতে তীব্র প্রতিক্রিয়া তৈরি হয়েছে। দেশগুলোতে ফ্রান্সবিরোধী নানা ধরনের কর্মসূচি পালন করা হচ্ছে। ফ্রান্সের কট্টর অবস্থানের জের ধরে এরই মধ্যে কাতার ও কুয়েতের সুপারমার্কেটগুলোতে ফরাসি পণ্য বয়কট শুরু হয়েছে। জর্ডানসহ মধ্যপ্রাচ্যের অন্য মুসলিম দেশগুলোর অনেকেই একই পথে হাঁটার চিন্তাভাবনা করছে।

তবে এরই মধ্যে ফ্রান্সের পক্ষ থেকে আহ্বান জানানো হয়েছে, মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলো যেন ফরাসি পণ্য বর্জন না করে। বাংলাদেশেও ধর্মভিত্তিক ইসলামি দলগুলো ফরাসি পণ্য বর্জনের আহ্বান জানিয়ে বেশকিছু কর্মসূচি পালন করেছে।

মুসলিম দেশগুলোর সরকার ও রাষ্ট্রপ্রধানরাও ফ্রান্স ও দেশটির প্রেসিডেন্ট ম্যাখোঁর সমালোচনায় মুখর হয়েছেন। এরই মধ্যে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান টুইট করেছেন, মহানবী (সা.)-এর ব্যাঙ্গচিত্র প্রদর্শনকে উৎসাহিত করে ম্যাখোঁ ইসলাম ধর্মকেই আক্রমণ করছেন।

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান আরও একধাপ এগিয়ে বলেছেন, ম্যাখোঁর মানসিক চিকিৎসা প্রয়োজন। তিনি তুর্কিদের প্রতি ফরাসি পণ্য বর্জনের আহ্বানও জানিয়েছেন।

বিষয়:

আরও পড়ুন

avertisements