avertisements 2

নববধূর সন্তান প্রসব, হাসপাতালের বেডেই পৌঁছাল তালাকনামা

ডেস্ক রিপোর্ট
প্রকাশ: ০৫:৩১ পিএম, ৪ জানুয়ারী,সোমবার,২০২১ | আপডেট: ০৭:০৮ পিএম, ১৭ মে,সোমবার,২০২১

Text

বিয়ের দুইমাস ১০ দিনের মাথায় সন্তান প্রসব করে হাসপাতালেই তালাকপ্রাপ্ত হয়েছে এক যুবতী। তার বাড়ি চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলার কয়রাডাঙ্গা গ্রামে। বিষয়টি এলাকায় মুখরোচক আলোচনার জন্ম দিয়েছে। রবিবার (৩ জানুয়ারি) সকালে উভয় পক্ষের অভিভাবকরা চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে এসে বিয়ে বিচ্ছেদের এ সিদ্ধান্ত নেন।

চুয়াডাঙ্গা পৌরসভার ১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর জাহাঙ্গীর আলম জানান, দুইমাস ১০ দিন আগে পৌর এলাকার ভিমরুল্লা গ্রামের এক যুবকের (আব্দুল আলিমের ছেলে মো. মোস্তাকিম) সাথে পারিবারিকভাবে আলমডাঙ্গার কয়রাডাঙ্গা গ্রামের এক যুবতীর (আব্দুল হালিমের মেয়ে সোনালী খাতুন) বিয়ে হয়। গত শনিবার রাতে (২ জানুয়ারি) যুবতী শ্বশুর বাড়িতেই একটি পুত্র সন্তান প্রসব করে। প্রসবের পর নবজাতকটি অসুস্থ হলে রোববার সকালে তাকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এরপর বিষয়টি জানাজানি হয়।

যুবতীর নিকটজনেরা জানান, বিয়ের আগে প্রতিবেশী হারুন-অর-রশিদের ছেলে আশিকুর রহমান আশিকের (২০) সাথে যুবতীর প্রেমের সম্পর্ক ছিলো। ধারণা করা হচ্ছে তার দ্বারাই সে অন্তঃস্বত্ত্বা হয়েছে। ওয়ার্ড কাউন্সিলর জাহাঙ্গীর আলম আরো জানান, বিষয়টি নিয়ে রোববার সকালেই দুই পরিবারের সদস্যরা হাসপাতাল চত্বরে একত্রিত হয়। পরে উভয় পক্ষের সম্মতিতে তালাক সম্পন্ন করা হয়।

বিষয়:

আরও পড়ুন

avertisements 2