Main Menu

অস্ট্রেলিয়ার গণতন্ত্রের জন্য একটি মহান দিন

অস্ট্রেলিয়ায় লিবারেল পার্টি, এলএনপি (লিবারেল ন্যাশনাল পার্টি) এবং ন্যাশনাল পার্টি’র কোয়ালিশন ১৫০ আসন বিশিষ্ট অস্ট্রেলিয়ান ফেডারেল পার্লামেন্ট বা কমন ওয়েলথ্ পার্লামেন্ট বা হাউজ অব রিপ্রেজেনটিটিভস্ এ ৭৪ টি আসন পেয়ে মাত্র এক সীট মেজরিটি নিয়ে সরকারে ছিলো।কিছুদিন পূর্বে লিবারেল লীডার এবং প্রধানমন্ত্রী ম্যালকম টার্নবল পার্টিরুমে দ্বিতীয়বারের জন্য লীডারশীপ চ্যালেন্জের মুখে প্রতিদ্বন্দ্বীতা না করে সরে যান এবং গোপন ব্যালোটে সরকারের ট্রেজারার (বাংলাদেশে যেটি অর্থমন্ত্রী হিসেবে পরিচিত।এখানে ফাইনান্স মিনিস্টার রয়েছেন কিন্তু তিনি ট্রেজারার কর্তৃক বাজেট বরাদ্দের ভিত্তিতে অর্থ খরচের পরিকল্পনা করে থাকেন। Responsibilities are more precisely defined.) স্কট মরিসন নতুন লীডার এবং প্রধানমন্ত্রী হোন।জাস্ট পরের দিনই ম্যালকম টার্নবল পার্লামেন্ট থেকে পদত্যাগ করেন।

আজ জনাব ম্যালকম টার্নবলের শূন্য আসনে উপ-নির্বাচন অনুষ্ঠিত হলো।লিবারেল পার্টির যে ছয়টি আসনেকে নিরাপদ আসন ভাবা হয় এই আসনটি সেগুলির একটি।এই আসনটির নাম ওয়েন্টওয়ার্থ।নিউ সাউথ ওয়েলস্ স্টেটের রাজধানি সিডনির ইষ্টার্ন সাবার্ব বলে পরিচিত।এই এলাকায় ভোটারের ১২% ইহুদী এবং তারা ধনী। পুরো এলাকাটি ধনিক এলাকা হিসেবে পরিচিত। সাবেক প্রধানমন্ত্রী একজন ধনী ব্যক্তি এবং তাঁর বাড়ীর মূল্য ৫০ মিলিয়ন ডলারের ওপরে।

নির্বাচনের পূর্বেই বিভিন্ন জরিপ বলছিলো লিবারেল পার্টি মনোনীত প্রার্থী দেব শর্মা বিশাল ব্যবধানে হারবেন এবং কোয়ালিশন সরকার মেজরিটি হারিয়ে মাইনরিটি সরকারে পরিনত হবে। সেক্ষেত্রে একটি ঝুলন্ত পার্লামেন্ট তৈরী হবে। সংসদে বিরোধী দল লেবার পার্টির ৬৯ টি আসন রয়েছে এবং ক্রসবেন্চে ৬ জন এবং আজকে স্বতন্ত্র প্রার্থী’র বিজয়ের মাধ্যমে ক্রসবেন্চে ৭ জন হলো।

এই পোষ্টটি লেখার আগ পর্যন্ত ৯০% ভোট গননায় স্বতন্ত্র প্রার্থী সাবেক অস্ট্রেলিয়ান মেডিকেল এ্যাসোসিয়েশনের সাবেক সভানেত্রী Dr Kerryn Phelps ৫৪% এবং দেব শর্মা ৪৬% ভোট পেয়েছেন।দেব শর্মা পরাজয় মেনে নিয়ে বিজয়ী প্রার্থী Phelps কে অভিনন্দিত করেছেন। কেরী ফেলপস্ তাঁর স্ত্রী এবং সমর্থকদের নিয়ে বিজয়োল্লাস করছেন এবং সমর্থকদের উদ্দেশ্যে বলেছেন তিনি ভোটারদের আকাঙ্খার সম্মান রক্ষা করবে।

প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন বললেন এ পরাজয়ের দায়ভার লিবারেল পার্টির ওপর বর্তায় কিছুতেই দেব শর্মার ওপরে বর্তায়না।আমরা পার্টি হিসেবে কিছুদিন পূর্বে ম্যালকম টার্নবলকে অপসারন করে যে ভুল করেছি ওয়েন্টওয়ার্থের জনগন তার জবাব দিয়েছে।আমরা দলকে পূণর্গঠনের চেষ্টা করবো, দলের মধ্যে ইউনিটি প্রতিষ্ঠা করবো।

ক্ষমতাসীন কোয়ালিশনের জন্য এই আসনটি কতটা জরুরী ছিলো তা’ প্রথমে লিবারেল পার্টির নোমিনেশন থেকে শুরু করে পররাষ্ট্রনীতি পরিবর্তনের মধ্য দিয়ে সবাই অনুভব করেছে।যদিও শেষ রক্ষা হয়নি।দেব শর্মা যেহেতু ইসরাইলে অস্ট্রেলিয়ার হাইকমিশনার ছিলেন সেকারনে ১২% ইহুদি ভোটের প্রত্যাশায় তাঁকে মনোনয়ন দেয়া হয়েছিলো। অপরদিকে অস্ট্রেলিয়া বরাবর প্যালেস্টাইন এবং ইসরাইল দু’টি স্বতন্ত্র (two states solution) রাষ্ট্র্রের পক্ষে peace process কে সমর্থন দিয়ে এসেছে।কিন্তু এই একটি মাত্র constituency জয়ের লক্ষ্য হিসেবে ইহুদিদের ১২% ভোট টার্গেট করে জনাব মরিসন ট্রাম্পকে সমর্থন করে অস্ট্রেলিয়ার হাইকমিশন ইসরাইল থেকে জেরুজালেমে স্থানান্তরের ঘোষনা দিলেন।ট্রাম্প আমেরিকার এ্যাম্বাসী জেরুজালেমে স্থানান্তরের ঘোষনা দিলে সমস্ত বন্ধু রাষ্ট্রগুলোও এর বিরোধিতা করে।অথচ অস্ট্রেলিয়া মধ্যপ্রাচ্যসংক্রান্ত পররাষ্ট্রনীতি পরিবর্তনের ঘোষনা দিলো দীর্ঘদিনের পররাষ্ট্রনীতির বিরুদ্ধে।

বিশ্লেষকগন প্রধানমন্ত্রী’র এই অকস্মাৎ ঘোষনা ইহুদিরা বিশ্বাস করবেনা বলে মতামত ব্যক্ত করেছিলেন।প্রধানমন্ত্রী তাঁর ঘোষনায় দৃঢ় থাকার ব্যাপারে তারা সন্দিহান ছিলেন এবং নির্বাচনের ফলাফল তা’ প্রমান করে।

অস্ট্রেলিয়ান পলিটিক্সের জন্য এটি একটি টাফ টাইম। প্রধানমন্ত্রী যদি পার্লামেন্টে নো কনফিডেন্স মোশন ফেইস করেন সেক্ষেত্রে তাঁকে ক্রসবেন্চ থেকে একজনকে ম্যানেজ করতে হবে। কোনো গুরুত্বপূর্ণ বিলে যদি বিরোধী দল সমর্থন না করেন তা’হলে ক্রসবেন্চ থেকে একজনকে ম্যানেজ করতে হবে।এটি অবশ্য পুরোপুরি প্রধানমন্ত্রীর দক্ষতা এবং যোগ্যতার ওপর নির্ভর করবে।সাবেক লেবার লীডার সাবেক প্রধানমন্ত্রী জুলিয়া গিলার্ডকে তাঁর সময়ের শেষদিকে একই পরিস্থিতি মোকাবেলা করতে হয়েছিলো।তিনি অবশ্য অত্যন্ত যোগ্যতার সাথে মোকাবেলা করেছিলেন।

তবে আগামী বছরে অনুষ্ঠিতব্য নির্বাচন নির্দিষ্ট সময়ের পূর্বে অনুষ্ঠানেরও সম্ভাবনা উড়িয়ে দেয়া যায়না।বিশ্বের যেসমস্ত দেশে (বিশেষ করে বাংলাদেশ) গনতন্ত্র এখনও প্রাতিষ্ঠানিক রূপ পায়নি তাদের জন্য অস্ট্রেলিয়ার আজকের উপ-নির্বাচনটি একটি উদাহরন হতে পারে।একটি আসনের জন্য সরকারের পতন হতে পারে জেনেও নির্বাচন ব্যবস্থাটিকে কলুষিত করা হয়নি। অবশ্যই অস্ট্রেলিয়ার জন্য সম্মানের এবং সর্বোপরি সমস্ত বিশ্বের গনতন্ত্রকামী মানুষের জন্য এটি একটি অনুকরনীয় দিন হতে পারে।


ADVERTISEMENT

Contact Us: 8 Offtake Street, Leppington, NSW- 2569, Australia. Phone: +61 2 96183432, E-mail: editor@banglakatha.com.au , news.banglakatha@gmail.com

ADVERTISEMENT