Main Menu

অপরাজিতা

অন্ধত্বকে জয় করা মুন্নি এখন বিসিএস ক্যাডার

1498328861

৩৫তম বিসিএস শিক্ষা ক্যাডারে নিয়োগ পেয়েছেন নাজমা ইয়াসমিন মুন্নি। নাজমা ইয়াসমিন আট/দশজন সাধারণ মানুষের মতো নয়। তিনি আড়াই বছর বয়সে টাইফয়েড জ্বরে দু’চোখের আলো হারিয়েছেন। তবে থেমে থাকেন নি কখনো। চোখে আলো না থেকেও যে স্বপ্ন জয় করা যায় তার অনন্য প্রমাণ নাজমা। বর্তমানে ইডেন মহিলা কলেজে বাংলা বিভাগের প্রভাষক তিনি। নাজমা ইয়াসমিন বলেন, এ পথ পাড়ি দেয়া মোটেও সহজ ছিল না আমার জন্য। জীবনে অনেক চড়াই-উৎরাই পার করেছি। তবে কখনো থেমে থাকিনি। ছোটবেলা থেকে স্বপ্ন ছিল পড়ালেখা করে অনেক বড় হবো। বিয়ে করার স্বপ্ন কখনো ছিলই না। তবুও বিয়েটা আমার জীবনে দুঃস্বপ্ন হিসেবে আসে। এখন আমি আমার দুই সন্তানবিস্তারিত


হ্যাপীর বদলে যাওয়া জীবন নিয়ে বই প্রকাশ

happy

মিডিয়া জগৎ থেকে হঠাৎই নিজেকে আড়াল করে নিয়েছেন একসময়ের আলোচিত চিত্রনায়িকা নাজনীন আক্তার হ্যাপী। তিনি জানিয়েছেন মিডিয়ায় ফেরার আর কোন ইচ্ছে নেই তার। হ্যাপী কোথায় আছেন? কেমন আছেন? জানা যায় এখন তিনি রাজধানীর একটি কওমি মাদ্রাসায় পড়াশোনা করছেন। তবে ফের মিডিয়ার নাম উঠছে হ্যাপীর। কারণ তার নিজের আত্মজীবনী। হ্যাপীর বদলে যাওয়া জীবন নিয়ে সম্প্রতি একটি বই প্রকাশ করেছে মাকতাবাতুল আযহার প্রকাশনা। বইটির নাম ‘হ্যাপী থেকে আমাতুল্লাহ’। সাক্ষাৎকারধর্মী এই বইটি লিখেছেন সাদিকা সুলতানা সাকী। বই প্রকাশকের নাম মাওলানা উবায়েদুল্লাহ। নিজের জীবনীর বই নিয়ে হ্যাপী ফেসবুকে লিখেছেন, ‘নতুন বইয়ের ঘ্রাণে আমার ঘর সুবাসিত হয়ে আছে, আলহামদুলিল্লাহ! ১০০ কপি বই পাঠিয়েছেন মাকতাবাতুল আযহারবিস্তারিত


যৌনপল্লি ছেড়ে আইনজীবী হওয়ার পথে তারা ১৯ জন

14

তারা ১৯ জন। অল্প বয়সেই বিক্রি হয়ে গিয়েছিলেন যৌনপল্লিতে। এরপর সেখান থেকে তাদের উদ্ধার করে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন হোমে রাখা হয়। সেখান থেকে উচ্চ শিক্ষা নিয়ে এবার আইনজীবী হওয়ার পথে সেইসব তরুণীরা। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার। আশা পটাবি। ৯ বছর বয়সে বিক্রি হয়ে গিয়েছিলেন কলকাতার যৌনপল্লিতে। শবনম শিসোদিয়া। ৮ বছর বয়সে নিজেরই বাবা যৌনপল্লিতে বিক্রি করে দিয়েছিলেন। কল্যাণী চক্রবর্তী। ১৬ বছর বয়সে জোর করে বিয়ে দিয়েছিলেন অভিভাবকেরা। স্বামী নিজের বন্ধুদের সঙ্গে তাঁকে সহবাসে বাধ্য করেছিল দিনের পর দিন। সঙ্গীতা মণ্ডল। ৯ বছর বয়সে লোকের বাড়ি কাজে ঢুকে যৌন নির্যাতনের শিকার হন। তার পরে বিক্রি হয়ে যান যৌনপল্লিতে। ১৯ জনেরই ছিঁড়েখুঁড়ে যাওয়াবিস্তারিত


লাক্স সুন্দরী থেকে যখন সুপ্রিম কোর্টের ব্যারিস্টার

1492541321

২০০৭ সালে লাক্স-চ্যানেল আই সুপার স্টার প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে সেরা দশে স্থান করে নিয়েছিলেন উপমা বিশ্বাস। অর্জন করেন ৬ষ্ঠ স্থান। কিন্তু মিডিয়া জগতের রঙিন হাতছানি উপেক্ষা করে বার এট ল (ব্যারিস্টারি) পড়তে লন্ডনে যান। কোন সিনেমা বা গল্পে নয়, এখন বাস্তব জীবনে দেশের সর্বোচ্চ আদালত সুপ্রিম কোর্টে বিভিন্ন মামলায় আইনি লড়াইয়ে অংশ নিচ্ছেন ২৯ বছরের তরুণী ব্যারিস্টার উপমা বিশ্বাস। পাশাপাশি বিজয় টিভিতে নিয়মিত সংবাদ পাঠ করেন তিনি। বিয়ে করেছেন তরুণ ব্যারিস্টার ইলিন ইমন সাহাকে। উপমার গ্রামের বাড়ি বরিশাল। জন্ম ১৯৮৮ সালে রাজধানীর মিরপুর।শৈশব-কৈশোর মিরপুরেই কেটেছে। মোহাম্মদপুরের গ্রিন হেরাল্ড ইন্টারন্যাশনাল স্কুলে ও-লেভেল পড়া শেষ করি। পরে ব্রিটিশ কাউন্সিলের অধীনে এ লেভেলবিস্তারিত


মুসলিমবিদ্বেষীদের রোষের মুখে সাফিয়া খানের সেই হাসি ভাইরাল বিশ্বে!

sofia

শ’খানেক মানুষের সামনে গিয়ে দাঁড়িয়েছিলেন সাফিয়া খান৷ গিয়েছিলেন আরেক নারীকে উদ্ধার করতে৷ তার দিকে তেড়ে এলেন একজন৷ ভয় না পেয়ে  চোখে চোখ রেখে তাকালেন৷ সেই থেকে সাফিয়া অনেকের কাছেই প্রতিবাদী নারীর প্রতীক৷ খবর ডয়েস ভেলে’র। ভিডিওটি এ পর্যন্ত এক লক্ষ ১৩ হাজার ৭৪১ বার দেখা হয়েছে এবং এটা নিশ্চিত যে, আগামীতে আরো বহুবার দেখা হবে৷ এই ভিডিওতেই যে সেদিনের ঘটনাটি নিজের মুখে বলছেন সাফিয়া! ভিডিওতে হিজাব পরা যে নারীকে দেখা যায় তার নাম সায়রা জাফর৷ গত সপ্তাহান্তে ইংল্যান্ডের বার্মিংহামে তাকে বাঁচাতে গিয়েই সারা বিশ্বের খবর হয়েছেন সাফিয়া৷ বার্মিংহামে সেদিন উগ্র ডানপন্থি এবং মুসলিমবিদ্বেষী সংগঠন হিসেবে পরিচিত ইংলিশ ডিফেন্স লিগ (ইডিএল)  প্রতিবাদবিস্তারিত




ADVERTISEMENT

Contact Us: 8 Offtake Street, Leppington, NSW- 2569, Australia. Phone: +61 2 96183432, E-mail: editor@banglakatha.com.au , news.banglakatha@gmail.com

ADVERTISEMENT