Main Menu

৭ই মার্চের ভাষণের ইউনেস্কো স্বীকৃতিতে অস্ট্রেলিয়াস্থ বাংলাদেশ হাই কমিশনের আনন্দ শোভাযাত্রা

Bangladesh High Commission Canberra

ক্যানবেরা, ৫ ডিসেম্বর ২০১৭, UNESCO কর্তৃক স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণকে বিশ্ব প্রামান্য ঐতিহ্যের অংশ হিসেবে ঘোষনা করায় এবং বিশ্ব আন্তর্জাতিক রেজিষ্টার স্মারকে (মেমোরী অব দ্যা ওয়ার্ল্ড ইন্টারন্যাশনাল রেজিষ্টার) এ অন্তর্ভুক্ত হওয়া উপলক্ষ্যে বাংলাদেশ হাইকমিশন, ক্যানবেরায় আনন্দ শোভাযাত্রাসহ এক আলোচনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

সন্ধা ৬:৩০ ঘটিকায় হাইকমিশন প্রাঙ্গনে অস্ট্রেলিয়া বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশীসহ হাইকমশিনে কর্মরত সকল কর্মকর্তা/কর্মচারীবৃন্দ এই আনন্দ শোভাযাত্রায় অংশগ্রহন করে। আনন্দ শোভাযাত্রার পর ৭ মার্চের ভাষণ বিষয়ক এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয় । আলোচনার শুরুতে মান্যবর ভারপ্রাপ্ত হাইকমিশনার ফরিদা ইয়াসমিন সর্বকালের সর্ব শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তাঁর পরিবারের নিহত সদস্যদের প্রতি শোকাহিত চিত্তে গভীর শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন এবং বলেন, বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণই প্রথম অলিখিত ভাষণ যা ইউনেস্কো কর্তৃক স্বীকৃত হয়েছে। উক্ত স্বীকৃতির ঘোষনা বাঙ্গালী জাতি তথা সকল মুক্তিকামী মানুষের জন্য অত্যন্ত গৌরবের ও আনন্দের বিষয়। অসীম সাহসিকতায় বজ্রকন্ঠে জাতির পিতা যে যুগান্তকারী ভাষণ দিয়েছিলেন তা ছিল মূলত বাঙ্গালি জাতির মুক্তির সনদ, স্বাধীনতার প্রকৃত ঘোষণা। বঙ্গবন্ধু তাঁর সহজাত ধীসম্পন্ন বিচক্ষণতা, অসাধারণ দূরদর্শিতা ও প্রগাঢ় রাজনৈতিক প্রজ্ঞার দ্বারা তৎকালীন রাজনৈতিক পরিস্থিতি, মুক্তিকামী বাঙ্গালী জাতির আবেগ ও আকাঙ্খাকে একসূত্রে আবদ্ধ করেন এই মহাকাব্যময় ভাষণের মধ্য দিয়ে-গড়ে ওঠে জাতীয় ঐক্য-শুরু হয় মুক্তিযুদ্ধ-বিশ্বের মানচিত্রে স্থান করে নেয় একটি স্বাধীন জাতিরাষ্ট্র-বাংলাদেশ। পৃথিবীর ইতিহাসে এইরূপ গভীর তাৎপর্যবহ, যুক্তিনিষ্ঠ, দুর্বার গণজাগরণ সৃষ্টিকারী ভাষণের নজির বিরল।

Bangladesh High Commission Canberra

Bangladesh High Commission Canberra

আলোচনা সভায় প্রবাসী বাংলাদেশীরা বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান-এর ১৯৭১ সালের ৭ই মার্চে প্রদত্ত ভাষণ বিশ্বের গুরুত্বপূর্ণ প্রামাণ্য ঐতিহ্য হিসাবে স্বীকৃতি প্রদানের মাধ্যমে পৃথিবীর মানুষ জাতির পিতার অতুলনীয় ব্যক্তিত্ব এবং বাঙ্গালী জাতির মুক্তি সংগ্রামে তাঁর অবিসংবাদিত নেতৃত্ব ও রাষ্ট্রদর্শনের বিষয়ে বিশদভাবে অবহিত হওয়ার সুযোগ পাবে। এই অসাধারণ ভাষণ বাঙ্গালি জাতিসহ এবং সকল মুক্তিকামী মানুষকে প্রজন্ম থেকে প্রজন্মান্তরে অনুপ্রেরণার অনন্য উৎস হিসাবে শক্তি যোগাবে।
পরিশেষে উপস্থিত সকলকে ধন্যবাদ এবং নৈশভোজে অংশগ্রহন করার অনুরোধ জানিয়ে অনুষ্ঠান সমাপ্ত ঘোষনা করা হয়।

Share Button







ADVERTISEMENT

Contact Us: 8 Offtake Street, Leppington, NSW- 2569, Australia. Phone: +61 2 96183432, E-mail: editor@banglakatha.com.au , news.banglakatha@gmail.com

ADVERTISEMENT