Main Menu

বরিশাল বিএনপির রাজনীতি থেকে বিদায় নিচ্ছেন সরোয়ার!

barisal

বিএনপির গঠনতন্ত্রে ‘এক নেতার এক পদ’ সংযোজন হওয়ায় বরিশালের রাজনীতি থেকে বিদায় নিচ্ছেন অ্যাডভোকেট মজিবর রহমান সরোয়ার। বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব পদ পাওয়ার পর বরিশালের মহানগর বিএনপির সভাপতির পদে থাকতে পারছেন না তিনি। সেক্ষেত্রে বরিশাল বিএনপির রাজনীতির নেতৃত্বে আসতে উদগ্রীব হয়ে আছেন প্রায় এক ডজন নেতা।

বরিশাল বিভাগে বিএনপির হেডকোয়াটার হলো মহানগর রাজনীতি। এখানে রয়েছে বিএনপির শক্তিশালী ঘাঁটি। যেখানে বিএনপির রাজনীতির নেতৃত্ব দিতে দলের নির্ভরযোগ্য ও ত্যাগী অনেক নেতা আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। যারা নিজেদের যোগ্যতার পরিচয় দিয়ে বিএনপির রাজনীতির চলমান প্রক্রিয়ার সঠিক ধারা বজায় রাখতে চান। এদের মধ্যে যারা নতুন নেতৃত্বে আসবেন বলে গুঞ্জন শোনা যায় তারা হলেন- সাবেক মহানগর বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট আলী হায়দার বাবুল, বর্তমান সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আহসান হাবীব কামাল, মহানগর সহ সভাপতি মহানগর সহ সভাপতি মনিরুজ্জামান ফারুক, মহানগর বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক আনোয়ারুল হক তারিন, মহানগর সহ সভাপতি মনিরুল আহসান মনির, যুব দলের সাধারণ সম্পাদক  মো. আকতারুজ্জামান শামীম, এ্যাড. নজরুল ইসলাম রাজন সহ প্রায় এক ডজন নেতা।

এ নিয়ে বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সহ সাংগঠনিক সম্পাদক ও বরিশাল জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আকন কুদ্দুসুর রহমান বলেন, রাজনীতি একটি চলমান প্রক্রিয়া আর সময়ের বিবর্তনে নতুন নতুন নেতার সৃষ্টি হয়। এখানে রাজপথে আন্দোলন সংগ্রামের মধ্যদিয়ে অনেক নেতার সৃষ্টি হয়েছে। যারা এখন বরিশালে নেতৃত্ব দেওয়ার যোগ্যতা রাখে। তিনি আরো বলেন, বেগম খালেদা জিয়া বিএনপিকে বিকশিত করতে এক নেতার এক পদ গঠনতন্ত্রে সন্নিবেশিত করেছেন। বিষয়টি সারা দেশের নেতাদের জন্যই প্রযোজ্য। মজিবর রহমান সরোয়ার এখন জাতীয় নেতা। তার কর্মকাণ্ড এখন সারাদেশ নিয়ে। সেক্ষেত্রে তার দৃষ্টি বরিশালে থাকবে এবং তার পরামর্শেই বরিশালে বিএনপির রাজনীতি চালিয়ে যাবেন নেতারা।

সাবেক মহানগর বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট আলী হায়দার বাবুল বলেন, এক নেতার এক পদ এই সিদ্ধান্তে বিএনপির নেতৃত্বের বিকাশ ঘটবে। তিনি বরিশাল মহানগর বিএনপির সভাপতি পদ পেতে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। কারণ বিএনপির সৃষ্টির লগ্ন থেকে ছাত্র রাজনীতির মধ্যদিয়ে দলের বিভিন্ন পদে থেকে কাজ করে আসছেন। দীর্ঘ অভিজ্ঞতায় মহানগর বিএনপির নেতৃত্ব দিতে নিজেকে পরিণত নেতা মনে করেন তিনি। মহনগর বিএনপির সভাপতির পদ পেতে দু’মাস আগে দলের চেয়ারপার্সনের কাছে জানিয়েছেন বলে জানান তিনি।

মহানগর বিএনপির যুব দলেন সাধারণ সম্পাদক মো. আকরুজ্জামান শামীম মহানগর বিএনপির সভাপতি পদ পাওয়ার আশা ব্যক্ত করে বলেন, ছাত্র রাজনীতি দিয়ে আমার পথ চলা। এরপর দীর্ঘ ৮ বছর যুবদলের সাধারণ সম্পাদক পদে আছি। বর্তমানে বরিশালে সুস্থ রাজনীতির অভাব আছে। এখানে নতুন করে কমিটি হচ্ছে না। রাজনৈতিক চলমান প্রক্রিয়া স্থবির হয়ে গেলে কর্মীরা স্থবির হয়ে যায়। এমনটাই এখানে হয়েছে। এখানে রাজনীতির কোন প্রাক্টিস এবং রাজনীতির প্রতিযোগীতার পরিবেশ নেই। আমি চাই সৃষ্টিশীল ও গতিময় রাজনীতি করতে। এখানে নেতৃত্বের ধারাবাহিকতা ফিরিয়ে আনতে হবে। ছাত্র রাজনীতির কর্মকাণ্ড ফিরিয়ে আনতে হবে। প্রতিপক্ষকে রাজনীতি দিয়ে প্রতিরোধ করতে হবে পেশী শক্তি দিয়ে নয়। তিনি আরো বলেন, এক সময় বলা হতো কর্মী মেলে ঘরে ঘরে নেতা মেলে ভাগ্যের জোরে এ বিষয়টি বরিশালে উল্টো গেছে। এসব বিষয়গুলো পরিবর্তন করতে হবে।

বিএনপির উত্তর জেলা বিএনপির সভাপতি এবায়েদুল হক চান জানান, বিএনপির এক নেতার এক পদের সিদ্ধান্ত বিএনপির যুগান্তকারী ঘোষণা। এতে নতুনদের নেতৃত্বে আসার সুযোগ সৃষ্টি হবে এবং তাদের পারফরমেন্স জানা যাবে। কেন্দ্র এই সিদ্ধান্ত রক্ষা করা একান্ত উচিত বলে তিনি মনে করছেন।

তবে মহানগর বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক জিয়াউদ্দিন সিকদার জিয়া বলেন ভিন্ন কথা। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ দল সরকারে থাকলেও মজিবর রহমান সরোয়ারের নেতৃত্বে বরিশালের বিএনপি দৃঢ় অবস্থানে আছে। এখানে রাজনৈতিক অভিভাবক হিসেবে তার বিকল্প নেই। তাকে যুগ্ম মহাসচিব করায় কেন্দ্রীয় কমিটিকে স্বাগত জানাই। তবে এক নেতার এক পদে থাকার বিষয়ে দলের গঠনতন্ত্রের শর্ত হলেও মাননীয় সভানেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার বিশেষ ক্ষমতায় কারো কারো ক্ষেত্রে প্রযোজ্য হবেনা। অবশ্য মজিবর রহমান সরোয়ার বরিশালের রাজনীতির পদ পেতে উদগ্রীব নয়। তিনি কেন্দ্রের যে কোনো সিদ্ধান্ত মেনে নিবেন বলে আমাদের জানিয়েছেন। সেক্ষেত্রে আমরা চাইব মজিবর রহমান সরোয়ার বরিশাল মহানগর সভাপতি পদে থেকে নেতৃত্ব দিবেন। এ ব্যাপারে নেতাকর্মীদের নিয়ে একটি রেজুলেশন করে কেন্দ্রীয় কমিটির কাছে আবেদন দেওয়া হয়েছে।

Share Button





Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*



ADVERTISEMENT

Contact Us: 8 Offtake Street, Leppington, NSW- 2569, Australia. Phone: +61 2 96183432, E-mail: editor@banglakatha.com.au , news.banglakatha@gmail.com

ADVERTISEMENT