Main Menu

মুক্তিযোদ্ধাকে মারধর করে টয়লেটে আটকে রাখলেন আ.লীগ নেতা

Freedomfighter

লক্ষ্মীপুরে নুর মোহাম্মদ নামে এক মুক্তিযোদ্ধাকে ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ের মারধর করে টয়লেটে আটকে রাখার অভিযোগ উঠেছে আওয়ামী লীগ নেতা এক ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে।

শনিবার দুপুর দেড়টার দিকে সদর উপজেলার উত্তরজয়পুর ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে। আহত মুক্তিযোদ্ধাকে সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আহত মুক্তিযোদ্ধা নুর মোহাম্মদ জানান, তিনি স্বাধীনতা যুদ্ধে কমান্ডার ছিলেন। সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী সম্প্রতি তিনি তার এলাকার ভুয়া মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকা করে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য সদর ইউএনও বরাবর আবেদন করেন। পরে অভিযোগটি ইউএনও সমাজসেবা কর্মকর্তাকে তদন্তের জন্য দেন। সেখান থেকে ঘটনাটি জেনে সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ইউপি চেয়ারম্যান আবুল কাশেমসহ কয়েকজন ভুয়া মুক্তিযোদ্ধা তার ওপর ক্ষিপ্ত হয়।

শনিবার দুপুরে তাকে সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ইউপি চেয়ারম্যান আবুল কাশেম তার কার্যালয়ে ডেকে নেন। একপর্যায়ে চেয়ারম্যান আবুল কাশেম, চৌকিদার আবদুল্লাহ, পরান মেম্বার ও স্থানীয় টিপু তাকে এলোপাতাড়ি কিল-ঘুষি ও লাঠি দিয়ে পিটিয়ে আহত করে বাথরুমে আটকে রাখে। পরে তিনি জানালার ফাঁক দিয়ে পালিয়ে প্রাণে রক্ষা পান।

এদিকে,অভিযোগ অস্বীকার করে সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উত্তর জয়পুর ইউপি চেয়ারম্যান আবুল কাশেম চৌধুরী বলেন, মুক্তিযোদ্ধা নুর মোহাম্মদের নেতৃত্বে কয়েকজন ইউপি কার্যালয়ের সামনের কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের জমি পরিষ্কার করে। বিষয়টি জানতে চেয়ে মুক্তিযোদ্ধা নুর মোহাম্মদকে ডেকে আনা হলে সে উত্তেজিত হয় এবং আমাকে মারার জন্য তেড়ে আসে। এসময় বিক্ষুব্ধ জনতা মারধরের চেষ্টা করলে মুক্তিযোদ্ধাকে নিরাপত্তা দিতে রুমে আটকিয়ে তালা দিয়ে হেফাজতে রাখেন।

পুলিশ সুপার আ স ম মাহাতাব উদ্দিন বলেন, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। এবং হাসপাতালেও পুলিশের টিম পাঠানো হয়েছে। তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Share Button







ADVERTISEMENT

Contact Us: 8 Offtake Street, Leppington, NSW- 2569, Australia. Phone: +61 2 96183432, E-mail: editor@banglakatha.com.au , news.banglakatha@gmail.com

ADVERTISEMENT