Main Menu

আদালতে আত্মহত্যা করা প্রালজাক কী ভাবে বিষ পেলেন ?

Paljak

ঘটনাস্থল রাষ্ট্রপুঞ্জের অপরাধ দমন আদালত। কাঠগড়ায় আসামি।

স্বাভাবিক ভাবেই কড়া নিরাপত্তাবেষ্টনীতে ঘেরা ছিল চারপাশ। সরাসরি সম্প্রচার করা হচ্ছিল শুনানি। এর মধ্যে ভরা আদালতে কী ভাবে বিষ এসে পৌঁছল আসামির হাতে, কী ভাবেই বা সকলকে হতবাক করে দিয়ে রায় শোনামাত্র ছোট্ট শিশি থেকে বিষ গলায় ঢেলে দিলেন বসনিয়ার সাবেক সেনাপ্রধান জেনারেল স্লোবোদান প্রালজাক, সে প্রশ্নই ঘুরপাক খাচ্ছে। ঘটনার ফুটেজ ছড়িয়ে পড়েছে ইন্টারনেটে। তদন্ত শুরু করেছেন ডাচ অফিসারেরা।
আরো পড়ুন: আদালতে যুদ্ধাপরাধীর আত্মহত্যার

চার বছর আগে যুদ্ধাপরাধে প্রালজাককে দোষী সাব্যস্ত করে ২০ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছিল। সেই রায়ের বিরুদ্ধে তিনি আবেদন করেছিলেন। বুধবার তার রায়েও প্রালজাককে দোষী সাব্যস্ত করে শাস্তি বহাল রাখে আন্তর্জাতিক আদালত। ইন্টারনেটে ভাইরাল হয়ে যাওয়া ভিডিও ফুটেজে দেখা গিয়েছে, রায় শুনেই বাদামি-রঙা একটা ছোট্ট কাচের শিশি থেকে গলায় বিষ ঢেলে দিলেন প্রালজাক।

আর তার পরে নিজেই ঘোষণা করেন, তিনি বিষ খেয়েছেন। বিচারককে প্রালজাক বলেন, আপনার এই রায় আমি ঘৃণাভরে প্রত্যাখ্যান করছি। আমি যুদ্ধাপরাধী নই! এর পরেই ঢলে পড়েন তিনি। ৭২ বছরের প্রালজাককে আন্তর্জাতিক আদালত থেকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে সেখানেই মৃত্যু হয় তাঁর।
আরো পড়ুন: স্বামীর জন্যই আত্মহত্যা করেছেন জিম

যে ছয় যুদ্ধাপরাধী আন্তর্জাতিক অপরাধ দমন আদালতে পুনর্বিবেচনার জন্য আবেদন জানিয়েছিলেন, তার মধ্যে প্রালজাকের মামলাই ছিল শেষ মামলা। তার এমন নাটকীয় পরিণতিতে সন্ধিহান ডাচ কর্তারা। প্রালজাক কী ধরনের বিষ খেয়েছিল, তাঁকে বাইরে থেকে কেউ বিষ এনে দিয়েছিল কি না, তদন্ত করে দেখছেন আধিকারিকেরা। আন্তর্জাতিক অপরাধ দমন আদালতের মুখপাত্র নেনাদ গোলসেভস্কি বলেন, বিষ খাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই ঢলে পড়েন প্রালজাক। ওঁকে জিজ্ঞাসাই করা যায়নি, শিশিতে কী ছিল, বা সেটা কী ভাবে তাঁর হাতে এল। তবে প্রাথমিক তদন্তে এটা নিশ্চিত, বিষাক্ত কিছু ছিল শিশিতে। আত্মহত্যায় সাহায্য করা এবং ওষুধ আইন লঙ্ঘন করা নিয়ে তদন্ত চলছে।

ঘটনার নিন্দা করে ক্রোয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী আন্দ্রেজ প্লেনকোভিচ বলেন, রাষ্ট্রপুঞ্জের আদালত অবিচার করল ওঁর সঙ্গে। তাঁর কথায়, উনি যে কাজটা করলেন, দুর্ভাগ্যজনক ভাবে আমরা যার সাক্ষী হলাম, সেটাই প্রমাণ করে দিল ক্রোয়েশিয়ার ছয় যুদ্ধাপরাধীর সঙ্গে কী তীব্র অবিচার করা হয়েছে! প্লেনকোভিচের আক্ষেপ, প্রালজাক মরে প্রমাণ করলেন, যুদ্ধাপরাধ তিনি করেননি।

Share Button







ADVERTISEMENT

Contact Us: 8 Offtake Street, Leppington, NSW- 2569, Australia. Phone: +61 2 96183432, E-mail: editor@banglakatha.com.au , news.banglakatha@gmail.com

ADVERTISEMENT